মেহেরপুরে বাড়ছে গ্রীষ্মকালীন মিষ্টি কুমড়ার আবাদ






মেহেরপুর : জেলায় দিন দিন বাড়ছে মিষ্টি কুমড়ার চাষ। জেলার বিভিন্ন এলাকার চাষিরা অন্যান্য ফসলের সাথে মিষ্টি কুমড়া চাষ করে আর্থিকভাবে লাভবান হচ্ছেন। ভাল ফলন আর আশানুরুপ দাম পেয়ে এ জেলার কৃষকরা সত্যিই অনেক খুশি।

জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর সূত্রে জানা গেছে, চলতি মৌসুমে মেহেরপুর জেলায় প্রায় ৪শ হেক্টর জমিতে মিষ্টি কুমড়ার চাষ হয়েছে। কার্তিক-অগ্রাহায়ণ মাসে যে জমিতে কৃষক ফুলকপির আবাদ করে সেই জমিতেই তারা মিষ্টি কুমড়ার বীজ বপন করে। মূলত ফুলকপির আবাদ শেষ হয়ে যাওয়ার পরেই তারা কুমড়ার ফলন পেতে থাকে। এতে করে কুড়চা চাষে জমিতে আলাদা কোন খরচ নেই। আবার বৈশাখ মাসের দিকে অনেকে নতুন কলাবাগানে কলাগাছের চারার সাথে কুমড়ার বীজ পুঁতে দেয়। কলাগাছ মাজাসময় হতে হতে তিনমাসের মধ্যে কুমড়া পাওয়া যায়। সেই কুমড়া বিক্রির টাকায় কলার আবাদ তোলা যায়। যা কলাচাষিদের কলাচাষে অর্ধেক খরচ কমে যায়।

সরেজমিনে দেখা গেছে, জেলার তিন উপজেলাতেই কমবেশি মিষ্টি কুমড়ার চাষ হয়ে থাকে। তবে গাংনী উপজেলায় উল্লেখযোগ্য হারে কুমড়ার আবাদ হয়। রাজধানীর কাওরান বাজারই হচ্ছে এ কুমড়ার সবচেয়ে বড় বাজার। চলতি বছর ৪০ শতাংশ জমিতে মিষ্টি কুমড়ার আবাদ করেছেন গাংনী উপজেলার ভোমরদহ গ্রামের চাষি জাহিদুল হাসান।

তিনি জানান, কুমড়া চাষে জমিতে বিঘাপ্রতি খরচ প্রায় ৪ থেকে ৫ হাজার টাকা। আর প্রতি বিঘাতে কুমড়া বিক্রি করে লাভ হয় ২০ থেকে ২৫ হাজার টাকা। একই গ্রামের হাসানুজ্জামান ২০১৭ সালে ২ বিঘা জমিতে লিচুবাগান করেছেন। সেই বাগানে লিচুগাছর চারার সাথে কুমড়োর আবাদ করছেন। গতবছর ২৫ হাজার টাকার কুমড়ো বিক্রি করেছেন। এবারও আশা করছেন অনুরূপ পরিমাণ টাকার কুমড়ো বেচাকেনা হবে বলে।

একই গ্রামের কৃষক হামিদ উদ্দিন জানান, এক বিঘা জমিতে সর্বোচ্চ ১২-১৩ শ কুমড়া পাওয়া যায়। প্রতিটি কুমড়ার দাম আকার ভেদে ১০ টাকা থেকে ২৫ টাকা পর্যন্ত। ক্ষেত থেকে পাইকাররা কুমড়া কিনে নেওয়ায় কৃষকের কোন বাড়তি ঝামেলা হয়না।

জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক ড. আক্তারুজ্জামান জানান, মেহেরপুরে দিন দিন কুমড়া চাষ জনপ্রিয় হচ্ছে। কম পরিশ্রমে ভাল লাভ পাওয়াতে কৃষকরা এ চাষে ঝুঁকছেন। কৃষকরা ফুলকপি, কলা, আলু ও আখ চাষের সাথে সাথে মিষ্টি কুমড়ার চাষ করছে। এতে করে তাদের খরচ কম হচ্ছে পাশাপাশি আর্থিকভাবেও লাভবান হচ্ছে। তবে, এ ব্যাপারে কৃষকের নিয়মিত পরামর্শ প্রদান করা হচ্ছে।

তথ্যসূত্র :  ফার্মসঅ্যান্ডফার্মার২৪ডটকম/এমএস

Share this:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

 
Copyright © মেহেরপুর ২৪. Designed by OddThemes