মেহেরপুরে ব্যাগিং পদ্ধতিতে বিষমুক্ত বেগুন চাষ করে লাভবান হচ্ছেন কৃষক





মেহেরপুরের মুজিবনগরে পরীক্ষামূলভাবে শুরু হয়েছে ব্যাগিং পদ্ধতিতে কীটনাশক, বিষ ও পোকামুক্ত বেগুন চাষ। এই পদ্ধতিতে চাষ করে লাভবান হচ্ছেন চাষিরা। মুজিবনগর উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণের এক কর্মকর্তা গবেষণামূলক ভাবে এই পদ্ধতিতে বেগুন চাষে কৃষকদের উদ্বুদ্ধ করেছেন।
বেগুন চাষ মানেই বেগুনের জমিতে ও শরীরে অতিরিক্ত রাসায়নিক সার, বিষ ও কীটনাশক প্রয়োগ করা। তারপরও উৎপাদনের পর হতো বেগুনে পোকা। একথা মিথ্যা প্রমাণ করে দিয়ে মেহেরপুরে কীটনাশক, বিষ ও পোকামুক্ত নিরাপদ বেগুন চাষ উৎপাদন শুরু হয়েছে। ব্যাগিং পদ্ধতিতে এই বেগুন চাষ সাড়া ফেলেছে পুরো জেলায়।
নিরাপদ সবজি উৎপাদন প্রকল্পের আওতায় মুজিবনগর উপজেলা কৃষি অফিস পরীক্ষামূলকভাবে এই পদ্ধতিতে বেগুন চাষ ছড়িয়ে দিতে চায় পুরো জেলায়। মুজিবনগর উপজেলার মহাজনপুর ও গাংনী উপজেলার কালিগাংনী গ্রামের বেগুন চাষি আবদুল গনি এবার ৩ বিঘা জমিতে এই পদ্ধতিতে বেগুন চাষ করছেন। পোকামুক্ত ও উচ্চ ফলনের এই বেগুন উৎপাদন করে তারা লাভবানও হয়েছেন। তাদের নিরাপদ পদ্ধতির বেগুন চাষ দেখে ব্যাপক সাড়া পড়েছে গ্রামের ক্রেতা ও অন্য চাষিদের মাঝে।
বেগুন চাষি ফজলুল হক জানান, দুদিন বয়সের বেগুনে ব্যাগিং করার পর ৮-১০ দিন পর তুললে বিষ এবং পোকামুক্ত ২৫০ গ্রামের প্রতিটি বেগুন পাওয়া যাচ্ছে। যা দেখতেও সুন্দর, ফলনও ভাল। বাজারে অন্যান্য বেগুনের থেকে এই বেগুনের দামও বেশি হওয়ায় আমি এবার লাভবান হবো।
মেহেরপুরে বিষমুক্ত বেগুন চাষ করে লাভবান কৃষকরাকয়েকজন বেগুন চাষি বলেন, আগে বেগুনে বিষ দিতে গিয়ে শরীর ক্লান্ত হয়ে পড়ত। এখন বিষ দিতে হয় না। আগে বিষযুক্ত বেগুন চাষ করে খাওয়ার সময় ভাবতাম এতো বিষ খাব কিভাবে। এখন ব্যাগিং পদ্ধতিতে বেগুন চাষে বিষ, কীটনাশক, রাসায়নিক সার কিছুই লাগে না। এছাড়াও বিষ দিয়েও বেগুন চাষ করছে কিছু কিছু চাষি। তারা জানান আগামী বছর থেকে ব্যাগিং পদ্ধিতিতে বেগুন চাষ করবেন তারা।
মেহেরপুর জেলা কৃষি কর্মকর্তা স্বপন কুমার শাহ জানান, একটি ব্যাগ মাত্র দুই টাকায় ক্রয় করে ৬-৮ বার ব্যবহার করা যাবে। যা ব্যবহার করলে চাষিদের একদিকে যেমন বিষ খরচ কমে যাবে এবং ফলনের পাশাপাশি বিষমুক্ত বেগুনের বাজার দামও ভাল পাবে। এছাড়াও যে সকল চাষি বিষ দিয়ে বেগুন চাষ করছে তাদেরকে আমরা ব্যাগিং পদ্ধতিতে বেগুন চাষ করার পরামর্শ দিচ্ছি। যাতে আগামীতে মেহেরপুরে কীটনাশক, বিষ ও পোকামুক্ত বেগুনের বাজার তৈরি হবে।

Share this:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

 
Copyright © মেহেরপুর ২৪. Designed by OddThemes